এযাবৎ 45 টি গ্রন্থ সংযোজিত হয়েছে।
বাঁধনহারা বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম রচিত একটি পত্রোপন্যাস। বাঁধনহারা নজরুল রচিত প্রথম উপন্যাস। করাচিতে থাকাকালীন তিনি ‘বাঁধন হারা’ উপন্যাস রচনা শুরু করেন। মোসলেম ভারত পত্রিকায় বাঁধনহারা-র প্রথম কিস্তি এবং ১৯২১ সালে (১৩২৭ বঙ্গাব্দ) ধারাবাহিক ভাবে প্রকাশিত হয়। ১৯২৭ সালে জুন মাসে (শ্রাবণ, ১৩৩৪ বঙ্গাব্দ) এটি প্রথম গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়।
বাঁধনহারা উপন্যাসটির বৈশিষ্ট্য হলো, এতে চরিত্রগুলো নিজেরা নিজেদের উন্মোচিত করে। নিজেদের সম্পর্কে এবং নিজেদের ধ্যানধারণা ও মতাদর্শ নিয়ে তারা চিঠির মাধ্যমে একে অপরের সঙ্গে কথা বলে। উপন্যাসটিতে মোট চরিত্রের সংখ্যা দশটি—আয়েশা, খুকি, মা/রোকেয়া, মাহবুবা, মনুয়ার, নুরুল হুদা, রবিউল, রাবেয়া, সাহসিকা ও সোফিয়া। রাবেয়া ও রবিউল দম্পতির শিশুকন্যা খুকি বা আনারকলি ছাড়া প্রত্যেকেই চিঠিতে নিজেদের তুলে ধরে।
এই উপন্যাসের একটি ঐতিহাসিক গুরুত্ব রয়েছে। উপন্যাসটির মাধ্যমে বাঙালিদের প্রথম আধুনিক যুদ্ধ অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জানা যায়। একজন বাঙালি সৈনিক কীভাবে এই নতুন অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে গিয়েছিল, তা চমৎকারভাবে ফুটে উঠেছে বাঁধনহারায়। নজরুল নিজে যোগদান করেছিলেন বাঙালি পল্টনে এবং দুই বছর সামরিক জীবন কাটিয়ে ১৯২০ সালে ফিরে এসেছিলেন দেশে। তাঁর এই অভিজ্ঞতাই এই উপন্যাসের অন্যতম পুঁজি।
তবে বাঁধনহারা শুধু সামরিক জীবনের অভিজ্ঞতাপূর্ণ একটি আখ্যান নয়; এটি আসলে একটি প্রেমের উপন্যাস। উপন্যাসের অন্যতম প্রধান চরিত্র মাহবুবা নুরুল হুদাকে প্রচণ্ড ভালোবাসে। কিন্তু নুরুল হুদা কোনো বাঁধনে জড়াতে চায় না। অবশেষে মাহবুবার বিয়ে হয়ে যায় চল্লিশোর্ধ্ব এক জমিদারের সঙ্গে। কিছুদিন পরই বিধবা হয়ে যায় মাহবুবা। পরে নুরুল হুদাকে সে লেখে যে, সে মক্কা ও মদিনায় তীর্থ ভ্রমণে যাবে এবং নুরুল হুদার কর্মস্থল বাগদাদেও যেতে পারে। নুরুল হুদা মাহবুবাকে নিষেধ করে না। তাদের দুজনের দেখা হওয়ার সম্ভাবনার মাধ্যমে শেষ হয় উপন্যাসটি।
কাহিনী সংক্ষেপ
নুরু মাহবুবা একে অন্যকে পছন্দ করে এবং তাদের বিয়ে তোড়জোড় শুরু হয়। এই সময়ে নুরু বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে সেনাবাহিনীতে যোগদান করে। নুরুর সেনাবাহিনীতে যোগদানের পিছনে দেশ ও জাতিকে রক্ষার কোন তাগিদ ছিল না। মাহবুবা, রাবেয়া ও সাহসিকা বাল্যসখী ও তাদের মধ্যে পত্র যোগাযোগ হয়। সাহসিকা তার নামের মতই সাহসী ও প্রতিবাদী। চিরকুমারী সাহসিকা নারীদের উপর অন্যায়ের প্রতিবাদ করে।
প্রধান চরিত্র
  1. নুরু
  2. মাহবুবা
  3. রাবেয়া
  4. সাহসিকা
আপনার জন্য প্রস্তাবিত
Scroll Up