এযাবৎ 50 টি গ্রন্থ সংযোজিত হয়েছে।
৫৪
কোরাস :
দে গোরুর গা ধুইয়ে॥
উলটে গেল বিধির বিধি
আচার বিচার ধর্ম জাতি,
মেয়েরা সব লড়ুই করে,
মদ্দ করেন চড়ুই-ভাতি!
পলান পিতা টিকেট করে–
খুকি তাঁহার পিকেট করে!
গিন্নি কাটেন চরকা, –কাটান
কর্তা সময় গাই দুইয়ে!
কোরাস :
দে গোরুর গা ধুইয়ে ॥
চর্মকার আর মেথর চাঁড়াল
ধর্মঘটের কর্মগুরু!
পুলিশ শুধু করছে পরখ
কার কতটা চর্ম পুরু!
চাটুয্যেরা রাখছে দাড়ি,
মিঞারা যান নাপিত-বাড়ি!
বোঁটকা-গন্ধী ভোজপুরি কয়
বাঙালিকে –‘মৎ ছুঁইয়ে!’
কোরাস :
দে গোরুর গা ধুইয়ে ॥
মাজায় বেঁধে পইতে বামুন
রান্না করে কার না বাড়ি,
গা ছুঁলে তার লোম ফেলে না,
ঘর ছুঁলে তার ফেলে হাঁড়ি!
মেয়েরা যান মিটিং হেদোর,
পুরুষ বলে, ‘বাপরে দে দোর!’
ছেলেরা খায় লাপসি হুড়ো,
বুড়োর পড়ে ঘাম চুঁইয়ে!
কোরাস :
দে গোরুর গা ধুইয়ে ॥
ভয়ে মিঞা ছাড়ল টুপি,
আঁটল কষে গোপাল-কাছা,
হিন্দু সাজে গান্ধি-ক্যাপে,
লুঙ্গি পরে ফুঙ্গি চাচা!
দেখলে পুলিশ গুঁতোয় ষাঁড়ে,
পুরুষ লুকায় বাঁশের ঝাড়ে!
খ্যাঁদা বাদুড় রায়-বাহাদুর,
খান-বাহাদুর কান খুইয়ে॥
কোরাস :
দে গোরুর গা ধুইয়ে ॥
খঞ্জ নেতা গঞ্জনা দেয়,
চলতে নারে দেশ যে সাথে!
টেকো বলে, ‘টাক ভালো হয়
আমার তেলে, লাগাও মাথে!’
‘কী গানই গায়’– বলছে কালা;
কানা কয়, কী নাচছে বালা!’
কুঁজো বলে, ‘সোজা হয়ে
শুতে যে সাধ, দে শুইয়ে!’
কোরাস :
দে গোরুর গা ধুইয়ে ॥
সস্তা দরে দস্তা-মোড়া
আসছে স্বরাজ বস্তা-পচা,
কেউ বলে না, ‘এই যে লেহি’
আসলে ‘যুদ্ধ দেহি’র খোঁচা।
গুণীরা খায় বেগুন-পোড়া,
বেগুন চড়ে গাড়ি-ঘোড়া!
ল্যাংড়া হাসে ভেংড়ো দেখে
ব্যাঙের পিঠে ঠ্যাং থুইয়ে!
কোরাস :
দে গোরুর গা ধুইয়ে ॥
চন্দ্রবিন্দু সূচী
আপনার জন্য প্রস্তাবিত
ভালো লাগা জানান
Scroll Up