ছায়ানট » অনাদৃতা

শিরোনাম অনাদৃতা
গ্রন্থনাম ছায়ানট
পাতা তৈরিমার্চ ৮, ২০১৯
সম্পাদনাএপ্রিল ৪, ২০১৯
দৃষ্টিপাত
ওরে অভিমানিনী!
এমন করে বিদায় নিবি ভুলেও জানিনি।
পথ ভুলে তুই আমার ঘরে দু-দিন এসেছিলি,
সকল সহা! সকল সয়ে কেবল হেসেছিলি।
হেলায় বিদায় দিনু যারে
ভেবেছিনু ভুলব তারে হায়!
ভোলা কি তা যায়?
ওরেহারা-মণি! এখন কাঁদি দিবস-যামিনী।
অভাগি রে! হাসতে এসে কাঁদিয়ে গেলি,
নিজেও শেষে বিদায় নিলি কেঁদে,
ব্যথা দেওয়ার ছলে নিজেই সইলি ব্যথা রে,
বুকে সেই কথাটাই কাঁটার মতন বেঁধে!
যাবার দিনে গোপন ব্যথা বিদায়-বাঁশির সুরে
কইতে গিয়ে উঠল দু-চোখ নয়নজলে পুরে!
না কওয়া তোর সেই সে বাণী,
সেই হাসিগান সেই মু-খানি, হায়!
আজওখুঁজি সকল ঠাঁই।
তোরে যাবার দিনে কেঁদে কেন ফিরিয়ে আনিনি?
ওরেঅভিমানিনী।
দৌলতপুর, কুমিল্লা
বৈশাখ ১৩২৮
নজরুল রচনাবলী
মতামত জানান