এযাবৎ 50 টি গ্রন্থ সংযোজিত হয়েছে।
শুরু করি লয়ে শুভ নাম আল্লার,
নাহি আদি নাহি অন্ত যাঁর করুণার।
অধিক লোভের বাসনা রেখেছে তোমাদেরে
মোহ-ঘোরে,
যাবৎ না দেখ তোমরা গোরস্থানের
আঁধার গোরে।
না, না, না, তোমরা শীঘ্র জানিবে পুনরায়
(কহি) ত্বরা
জ্ঞাত হবে; না, না, হতে যদি জ্ঞানী ধ্রুব সে
জ্ঞানেতে ভরা।
দোজখদোজখ : নরক।-অগ্নি করিবে তোমরা নিশ্চয় দর্শন
দেখিবে তাহারে তার পর লয়ে বিশ্বাসীর নয়ন।
–নিশ্চয় তার পরে
হইবে জিজ্ঞাসিত আল্লার চিরসম্পদ তরে।
অর্থ-সঙ্কেত
তাকাসুর—প্রাচুর্যের গর্ব করা।
সুরা তাকাসুর
এই সুরা মক্কা শরীফে অবতীর্ণ হইয়াছে। ইহাতে ৮টি আয়াত, ২৮টি শব্দ ও ১২৩টি অক্ষর আছে।
শানে-নজুল
কোরেশকুলের এক শাখার নাম বনি-আব্দ-বেনে মান্নাফ, অপর শাখার নাম বনি-সাহম। প্রত্যেক শ্রেণী অহঙ্কারে মত্ত হইয়া বলিতে লাগিল—আমরা অর্থে, ঐশ্বর্যে, সম্রমে ও লোকসংখ্যায় শ্রেষ্ঠতর। এমনকি, প্রত্যেক দল স্বীয় গৌরব বর্ধনের নিমিত্ত আপন দলভুক্ত লোকদিগকে গণনা করিতে আরম্ভ করিল। এই গণনায় আব্দ-মান্নাফ বংশের লোক সংখ্যায় অধিক হইল। পরে জীবিত ও মৃত উভয় শ্রেণীর লোক গণনা করায় বনি-সাহম দলের লোকসংখ্যা অধিক হইল। লোকসংখ্যা নিরূপণের নিমিত্ত তাহারা গোরস্থানে গিয়াছিল। সেই সময় এই সুরা নাজিল হয়।
মতান্তরে : ইহুদিগণের নামে সংখ্যাধিক্য লইয়া কলহের সূত্রপাত হওয়ায় মদিনাবাসী বনি-হারেস ও বনি-হারেসা এই দুই দল পরস্পর ধনৈশ্বর্যের অহঙ্কার করায় এই সুরা নাজেল হয়।
—(একসির)
কাব্য আমপারা সূচী
আপনার জন্য প্রস্তাবিত
ভালো লাগা জানান
Scroll Up