এযাবৎ 49 টি গ্রন্থ সংযোজিত হয়েছে।
শুরু করি লয়ে শুভ নাম আল্লার,
করুণা ও কৃপা যাঁর অনন্ত অপার।
শপথ ‘তীন’ ‘জায়তুন’ ‘সিনাই’সিনাই : এই পাহাড়ে হজরত মুসা তওরাত গ্রন্থ পান এবং খোদার জ্যোতি দর্শন লাভ করেন। পাহাড়
শপথ সে শান্তিপূর্ণ নগর মক্কার –
নিশ্চয় মানুষে আমি করেছি সৃজন
দিয়া যত কিছু শ্রেষ্ঠ মুরতি গঠন।
(যে জন সুবিধা এর লইল না তারে)
করিয়াছি নীচাদপি নীচ সে জনারে।
কিন্তু যে ইমানইমান : ধর্মীয় বিশ্বাস। আনে, সৎকাজ করে,
অনন্ত সে পুরস্কার আছে তার তরে।
‘সুবিচার পাবে সবে’ বলিলে তোমায়
মিথ্যার আরোপ করে কে সে তবে, হায়?
আল্লাহ্ কি নন
সব বিচারক চেয়ে শ্রেষ্ঠতম জন?
অর্থ-সঙ্কেত
তীন — হজরত ঈসার জন্মভূমি বায়তুল মোকাদ্দসে তীন জায়তুনের গাছ খুব বেশি বলিয়া উহাকে এই নামে আখ্যাত কার হইয়াছে।
সিনাই — এক পাহাড়ের নাম। এই পাহাড়ে হজরত মুসা তওরাত গ্রন্থ প্রাপ্ত হন এবং খোদার জ্যোতি দর্শন করিয়া মূর্ছিত হইয়া পড়েন।
সুরা তীন
এই সুরা মক্কা শরীফে নাজেল হইয়াছে। ইহাতে ৮টি আয়াত, ৩৪টি শব্দ ও ১৬৫টি অক্ষর আছে।
শানে-নজুল
  1. তীন—আঞ্জির, জায়তুন—তৈল বৃক্ষ বিশেষ উভয় নামে পরিচিত পর্বতে হজরত ঈশার জন্ম ও নবুয়ত প্রাপ্তি হয়।
  2. সিনিনা—সিনাই পাহাড়; এস্থানে হজরত মুসা ‘তওরাত’ গ্রন্থ প্রাপ্ত হন।
  3. বালাদুল আমিন ‘শান্তিময় নগর’—এই বাক্যাংশ দ্বারা হজরত মোহাম্মদ মোস্তফার (দ.) জন্মভূমি মক্কা নগরীকে বুঝায়।
উক্ত তিনটি পাক স্থানের নামে উপরোক্ত নবীগণের স্মরণার্থ আল্লাহতায়ালা শপথ করিয়া মানবগণকে এই সাবধান বাণী জানাইতেছেন যে, তিনি আদেশ-প্রদাতাদের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ (আদেশ প্রদাতা)।
কাব্য আমপারা সূচী
আপনার জন্য প্রস্তাবিত
ভালো লাগা জানান
Scroll Up