এযাবৎ 50 টি গ্রন্থ সংযোজিত হয়েছে।
১৩৩৯ সালের আষাঢ় মাসে ‘সুর-সাকী’ প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয়। প্রকাশক: শরচ্চন্দ্র চক্রব্রতী অ্যাণ্ড সন্স, মানিকতলা স্পার, কলিকাতা। মুদ্রাকর: শ্রীক্ষেত্রমোহন দালাল, কালিকা প্রেস, ২১ নং নন্দকুমার চৌধুরী লেন, কলিকাতা। ৮+১০৪ পৃষ্ঠা; দাম দেড় টাকা।
‘গানগুলি মোর আহত পাখির সম’ এবং প্রিয় তুমি কোথায় আজি’ ১৩৩৮ বৈশাখ-আষাঢ়ের জয়তীতে প্রকাশিত হয়। প্রথম গানটির অন্তরার শেষাংশ জয়তীতে ছাপা হইয়াছিল নিম্নরূপ—
তোমার চরণে লভিবে মরণ
সুন্দর অনুপম।।
‘কত সে জনম কত সে লোক’ ১৩৩৮ আষাঢ়ের উত্তরায় বাহির হয়। গানটির শেষ কলি উত্তরায় ছাপা হইয়াছিল এরূপ—
কত আশা আছে কত সে সাধ
অভিমানী, তাহে সেধো না বাদ।
না মিটিতে সাধ, স্বপন-চাঁদ
মিলনের রাতি করো না ভোর।।
‘কে দুয়ারে এলে মোর তরুণী ভিখারী’ ১৩৩৮ সালের বার্ষিক প্রাতিকায় প্রকাশিত হয়।
‘কত আর এ মন্দির-দ্বার’ ১৩৩৯ জ্যৈষ্ঠের ভারতবর্ষে স্বরলিপিসহ বাহির হয়।
‘নিরালা কানন-পথ’, ‘এল ফুলের মরশুম’, ও প্রিয় তব গলে দোলে’ গীতিত্রয় ১৩৩৯ বৈশাখের জয়ন্তীতে গজল-গুচ্ছ শিরোনামে প্রকাশিত হয়।
১৮ ও ৬৩-সংখ্যক দুইটি গান (আজি দোল-ফাগুনের দোল লেগেছে) অভিন্ন। কেবল অন্তরার প্রথম চরণে ‘তরুর’ স্থানে আছে অপরটিতে আছে ‘পাতার’।
‘বিরহের ফুলবাগে মোর’ ১৩৩৯ শ্রাবণের ভারতবর্ষে বাহির হয়।
‘তুমি কোন পথে এলে হে মায়াবী কবি’ ১৩৩৮ শ্রাবণ-আশ্বিনের জয়তীতে ১৩৩৮ আশ্বিনের উপাসানায় প্রকাশিত হয়। ১৩৩৮ সালের ৬ই ভাদ্র কলিকাতা বেলঘরিয়ায় রসচক্র সাহিত্য-সংসদের উদ্যোগে পরলোকগত কবি যতীন্দ্রমোহন বাগচীর সম্বর্ধনা উপলক্ষ্যে এক উদ্যান-সম্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়, তাহাতে নজরুল ইসলাম এই কীর্তনটি গাহিয়া ‘অগ্রজোপম’ কবির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করিয়াছিলেন।
‘থাক সুন্দর ভুল আমার’ ১৩৩৮ সালের বার্ষিকী ‘প্রাতিকায় বাহির হয়; তাহাতে গানটির অস্থায়ী ছাপা হয় নিম্নপ্রকার—
থাক সুন্দর মিথ্যা আমার
ছলনা মধুর তব মন।
মিথ্যা করিয়া ‘ভালোবাসি’ বলে
দিও গো মিথ্যা হরষণ।।
‘আজিকে তনু-মনে লেগেছে রং’ এবং ‘কে এলে গো চির-চেনা অতিথি’ ১৩৩৮ কার্তিক-পৌষের জয়তীতে প্রকাশিত হয়।
‘সাত ভাই চম্পা জাগো রে’ ১৩৪০ ভাগের ‘বুলবুল’ পত্রিকায় বাহির হয়।
সুর-সাকী সূচী
আপনার জন্য প্রস্তাবিত
ভালো লাগা জানান
Scroll Up